২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রত্যেকটা ঘরে আলো জ্বালাব: প্রধানমন্ত্রী

জাতীয়

ঢাকা ব্যুরো.

২০২১ সালের মধ্যে দেশের শতভাগ মানুষকে বিদ্যুৎ দেয়ার পরিকল্পনা পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে ব্যাপক কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল। ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী বড় পরিসরে পালনের পরিকল্পনা হয়েছিল। কাজেই ২০২০ থেকে ২০২১- এই বছরের মধ্যে আমরা সমগ্র বাংলাদেশের প্রত্যেকটা ঘরে আলো জ্বালাব। শতভাগ বিদ্যুৎ আমরা দিতে পারব। ইতোমধ্যে আমরা ৯৭ ভাগ জনগণকে বিদ্যুৎ দিতে সক্ষম হয়েছি।

বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ৩১টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন, ২টি পাওয়ার প্ল্যান্ট, ১১টি গ্রিড সাব-স্টেশন, ৬টি নতুন সঞ্চালন লাইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ২৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমরা উৎপাদন করব। এখন রয়েছে ২৩ হাজার ৫৪৮ মেগাওয়াট। আর ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের টার্গেট রয়েছে। ২০৪১ সাল অর্থ্যাৎ আমরা যে প্রেক্ষিত পরিকল্পনা করেছি, সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে।

তিনি বলেন, আমরা সারা দেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করছি। সেখানে যাতে শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থান হয় তার জন্য আমাদের বিদ্যুৎ দরকার। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছি। এই ডিজিটাল বাংলাদেশের ব্যবহার যত বেশি বাড়বে, বিদ্যুতের চাহিদাও ততবেশি বৃদ্ধি পাবে। সেদিকে লক্ষ্য রেখে এবং সার্বিকভাবে যাতে অর্থনৈতিক উন্নতি হয় অর্থাৎ উন্নতিটা শুধু রাজধানী কেন্দ্রিক না, শহর কেন্দ্রিক না, আমরা প্রত্যেকটা গ্রামকে শহরে রূপান্তর করতে চাই। এ সময় তিনি নাগরিক সুবিধা গ্রামের মানুষের ঘরে পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *