ধর্ষণ বন্ধে এ ধরনের কঠোর আইনের প্রয়োজন আছে : কাদের

জাতীয়

ঢাকা ব্যুরো.

ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের শাস্তি মৃত্যুদ- সমর্থন করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ধর্ষণ বন্ধ করতে হলে এ ধরনের কঠোর আইনের প্রয়োজন আছে। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে ভারতের নতুন হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, সর্বোচ্চ সাজা নিশ্চিত হলে এদের মধ্যে একটা ভীতিও থাকতে পারে। বিষয়টি যেভাবে বাড়ছে। সহিংসতা ও ধর্ষণ বন্ধ করতে হলে এ ধরনের কঠোর আইন প্রয়োগের প্রয়োজন রয়েছে। ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি বাড়িয়ে মৃত্যুদ- করতে আইন সংশোধনে সোমবার সায় দিয়েছে মন্ত্রিসভা। ভারতের নতুন হাইকমিশনারের সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, তিস্তার পানিবণ্টন ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অত্যন্ত আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। দুদেশের রাজনৈতিক দলের মাঝে সংযোগ বাড়াতে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফরে আসার পরিকল্পনা রয়েছে জানিয়ে কাদের বলেন, এ ধরনের সফর দুদেশের জনগণের বিদ্যমান সম্পর্ক আরও এগিয়ে নিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। ভারতের সঙ্গে ট্যুরিস্ট ভিসা চালু হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ইতিবাচক অগ্রগতি আছে, এ মুহূর্তে চালু হচ্ছে সেটি বলা যাবে না। ভারতের নতুন হাইকমিশনার দোরাইস্বামী বলেন, আমরা ইতিমধ্যে ভিসা প্রক্রিয়া চালু করেছি। সব ভিসা বিভাগ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আমি সব ধরনের ভিসা চালুর জন্য চেষ্টা করছি। মহামারীর কারণে ট্যুরিস্ট ভিসা চালুতে আরও বেশি সময় লাগবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *